Home | About Us | Porshi Team | Porshi Patrons | Event Announcement | Contact Us
হোমপেজ পুরনো সংখ্যা: সূচীপত্র  উত্তর আমেরিকায় কর্মকান্ড  ||  ১০ম বর্ষ ১ম সংখ্যা বৈশাখ ১৪১৭ •  10th  year  1st  issue  Apr - May  2010 পুরনো সংখ্যা
ফিনিক্সে জমকালো বৈশাখী মেলা Download PDF version
 

উত্তর 
আমেরিকায় কর্মকান্ড

 

ফিনিক্সে জমকালো বৈশাখী মেলা

 

ফিনিক্স প্রতিবেদক

 

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ফিনিক্স (বাপ) এর আয়োজনে টেম্পি শহরের কিওয়ানিস পার্কের সিস্টার্স সিটিস গার্ডেনে গত ৪ঠা এপ্রিল আয়োজিত হল বৈশাখী মেলা। ফিনিক্সের আসন্ন গরমের কথা চিন্তা করে বৈশাখ আসার দশ দিন আগেই আয়োজিত হয় এই বৈশাখী মেলা। বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ফিনিক্সের সভাপতি চাঁদ সুলতানা লিপি। এই অনুষ্ঠানে অ্যাসোসিয়েশনের বর্ধিত কমিটি সদস্যদের পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। এবং পূর্ববর্তী কমিটিগুলোতে যারা বিভিন্ন দায়িত্বে ছিলেন সবার অবদান কৃতজ্ঞতাচিত্তে স্মরণ করা হয়।

 

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি ছিলেন লস এঞ্জেলেসের কনসাল জেনারেল বাংলাদেশ, জনাব এনায়েত হোসেন। অনুষ্ঠানে ফিনিক্সের বাইরে টুসন, লাস ভেগাস এবং লস এঞ্জেলেস থেকেও অনেক দর্শক সমাগম হয়।

দর্শকরা সকাল থেকে শুরু করে বিভিন্ন রঙের রকমারি পোশাকে সজ্জিত হয়ে মেলার আমেজে সারাটা দিন কাটান কিওয়ানিস পার্ক চত্বরে।

বিভিন্ন ধরণের বৈচিত্র্যময় উপাদানে সজানো হয়েছিল আকর্ষণীয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শিকড় বাংলা স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা তাদের সাবলীল উচ্চারণে আবৃত্তি করে কবিতা ও পরিবেশন করে সঙ্গীত।  বাঙ্গালী হলেও হবে ভাই শিখতে,  ভালো করে বাংলাটা পড়তে ও লিখতে ছড়াটির মাধ্যমে তারা বর্ণনা করে বাংলা শেখার গুরুত্ব।

সুর ও বাণী সঙ্গীত নিকেতনের ছাত্র-ছাত্রীদের সমবেত সঙ্গীত আমরাতো ভাই বাঙ্গালী, ভাতে মাছে কাঙ্গালীর মাধ্যমে দ্বিতীয় প্রজন্মের শিশু কিশোররা সবাইকে মনে করিয়ে দেয় ভিন্ন পরিবেশে বড় হলেও তারা সবাই বাঙ্গালী সংস্কৃতিকেই মনে প্রাণে ধারণ করে। এছাড়াও তাদের পরিবেশনায় আরও বেশ কিছু দ্বৈত সঙ্গীত সবার প্রশংসা কুড়ায়।

অন্যান্য শিশু কিশোরদের পরিবেশনায় আরো ছিল বিভিন্ন সঙ্গীত, ছড়া ও যন্ত্র সঙ্গীত। দুই বছরের শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সের শিশু-কিশোররা তাদের হৃদয় নিংড়ানো পরিবেশনা দিয়ে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির প্রতি তাদের অকৃত্রিম ভালোবাসা প্রকাশ করে।

ঠাকুর মা  ঝুলি অবলম্বনে  শিশুদের পরিবেশনায় নাটিকা বিচার দর্শকদের মুগ্ধ করে।

অ্যারিজোনা শিল্পী গোষ্ঠী এসো হে বৈশাখ গানটি দিয়ে নতুন বছরকে বরণ করে নেন। এছাড়াও তাদের পরিবেশনায় ছিল বিভিন্ন দেশাত্মবোধক, লোক, এবং আধুনিক গান। অন্যান্য পরিবেশনার মধ্যে আরও ছিল কবিতা আবৃত্তি,  জারি গান, পুঁথি পাঠ ও কবির লড়াই।

স্থানীয় শিল্পীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন ক্লোজ আপ ওয়ান তারকা ফারজানা ববি এবং বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী জনাব এম এ শোয়েব। আমন্ত্রিত শিল্পীদের মধ্যে লস এঞ্জেলেস থেকে আগত নৃত্য শিল্পী শাওন এবং সঙ্গীত শিল্পী রিয়া হাসান পরিবেশনা উল্লেখযোগ্য।

শিশুদের জন্য বিশেষ আয়োজন যেমন খুশী তেমন সাজ প্রতিযোগিতায় শিশুরা বেদের মেয়ে, পাহাড়ী মেয়ে, ফুলওয়ালী, শহুরে মেম, বাঙ্গালী বাবু, বাদামওয়ালা, রাখাল ছেলে, কৃষক, কিষানী ইত্যাদি সাজে সেজে সকলকে আনন্দ দেয়। উপস্থিত দর্শকদের ভোটে প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের নির্বাচন করা হয়। এছাড়াও শিশুদের জন্য আকর্ষণীয় বিষয় ছিল ম্যাজিক শো, ফেস পেইন্টিং এবং ঘুড়ি ওড়ানো।

দর্শকদের অংশ গ্রহণে মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় বিভিন্ন মজার খেলা যেমন ছেলেদের রুটি বানানো কিংবা মেয়েদের টাই বাঁধা প্রতিযোগিতা।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ফিনিক্স (বাপ) এর পতাকা ডিজাইন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে বেশ কয়েকজন স্থানীয় ডিজাইনার। দর্শকদের ভোট এবং বিচাররকদের রায়ে নির্বাচিত হয় বাপ এর পতাকা।

খাবার বুথগুলোতে  দিনব্যাপী চলে বিভিন্ন ধরণের দেশীয় খাবার। বুথগুলির নামগুলিই দর্শকদের মধ্যে ক্ষুধার উদ্রেক করে। বিরানী, বোরহানী, কাবাব, পেয়াজু, ঝাল মুড়ি, চটপটি হালিম, জিলাপী, মিষ্টি, পায়েশ, পান্তা-ইলিশ ইত্যাদি খাবার খেয়ে দর্শকরা সারাটি দিনই ছিলেন দেশীয় আমেজে।   

লস এঞ্জেলেস থেকে আগত কনসাল জেনারেলের টিম একটি বুথে পাসপোর্ট সার্ভিস দিয়ে অনেককে উপকৃত করেন।

সেনসাস ব্যুরোর বুথ থেকে আমন্ত্রিত অতিথিদের চলতি আদম শুমারীতে অংশগ্রহণ করার জন্য অনুপ্রাণিত করা হয়।

শিকড় বাংলা স্কুলের বুথে ছিল শিশুদের জন্য বিভিন্ন খেলার আয়োজন এবং বিভিন্ন বাংলা বই ও পত্রিকা। এছাড়া শিকড় বৈশাখী মেলা উপলক্ষ্যে প্রকাশ করে শিশু কিশোরদের আকাঁ ছবি সম্বলিত বাংলা ১৪১৭ সালের ক্যালেন্ডার।  শিকড়ের পক্ষ থেকে প্রতি বছর এই সময়ে বাংলা সালের ক্যালেন্ডার প্রকাশ করা হয়।

এছাড়াও ছিল তিনটি বুটিক শপ যেখান থেকে দর্শকরা বাংলাদেশের হাল ফ্যাশনের রকমারি পোশাক কিনতে পেরেছেন।

কনসাল জেনারেল জনাব এনায়েত হোসেন তার বক্তব্যে বাংলাদেশীদের সেবায় লস এঞ্জেলেসের কনসুলেট অফিসের ভূমিকা তুলে ধরেন। লস এঞ্জেলেসে আগামী ফোবানা সম্মেলনে সকলকে আমন্ত্রন জানান ফোবানার কনভেনর জনাব জাহিদ পিন্টু।

  ফিনিক্সে সব সময়ই বৈশাখী মেলা একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠান। বাপ এর পূর্ববর্তী কমিটিগুলো সবসময়ই গুরুত্বের সাথে বৈশাখী মেলা আয়োজন করেছে। এবং সেই থেকে ফিনিক্সের বাংলাদেশীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে এই দিনটির জন্য যে দিনে তারা কিছুটা হলেও ফিরে পেতে পারে ঢাকার রমনা প্রাঙ্গনের আমেজ। বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ফিনিক্স এর বর্তমান কমিটি তারই ধারাবাহিকতায় এবং বেশ কিছু নতুনত্ব উপহার দিয়ে একটি সফল বৈশাখী মেলা আয়োজনের মাধ্যমে দর্শকদের সেই ক্ষুধা নিবারণ করতে পেরেছে। ভবিষ্যতে বাংলাদেশ কমিউনিটি তাদের কাছে আরও আরও সুন্দর অনুষ্ঠান আশা করে।

 

মন্তব্য:
Shamsul Wazed   April 25, 2010
The article covered all sides of our (BAP) 'Baishakhi Mela'. Thanks "Porshi' ........
এ সপ্তাহের জরীপ

প্রেসিডেন্ট ওবামা ঠিকমত দেশ চালা্চ্ছেন।

 
Code of Conduct | Advertisement Policy | Press Release | Hard Copy Archive
© Copyright 2001 Porshi. All rights reserved.